মডারেট মুসলিম কারা? # আবুকার আরমান

০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৬:১৮

শেয়ার করুন: Facebook

(মডারেট মুসলিম নিয়ে আলোচনা এখন খানিকটা স্তিমিত। কিছুদিন আগেও এ নিয়ে বাঘা পত্রিকাগুলো এ নিয়ে নিজেদের ব্যস্ত রাখতো। তখন লেখাটা অনুবাদ করছিলাম। এখন এখানে তুলে দিলাম।)

১১ সেপ্টেম্বর ২০০১ এর পর এবং বিপর্যয় সৃষ্টি করা ইরাক যুদ্ধের সময় থেকে বলা হচ্ছে, মডারেট মুসলিমরাই চরম ইসলামপন্থীদের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর সবচেয়ে সক্ষম পক্ষ। এমএম ফ্যাক্টর (মডারেট মুসলিম) এখন মনোযোগের কেন্দ্রে। কোনো কোনো মহলে এটা গ্রহণযোগ্যতাও পেয়েছে।
কিন্তু কারা এই মডারেট মুসলিম? কোন ভাবাদর্শ তাদের পরিচালনা করছে? তাদের যাচাই বাছাইয়ের মানদণ্ড কী? আরও গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, এ মানদণ্ডগুলোর ব্যাখ্যাই বা কে দেবে?
এই প্রশ্নে নিরপে বিতর্ক শুরুর আগেই ডেনিয়েল পাইপসের মতো নিওকনজারভেটিভ কর্মীরা এমএম ফ্যাক্টর নিয়ে বিতর্কে বাগড়া দিতে শুরু করেছেন। নিজেদের সুবিধা মতো একটা তালিকা তৈরির জন্য বলে বসেছেন ইসলামবিরোধী মুসলমানরাই এমএম। বিস্ময়কর নয় যে, এই তালিকায় আছেন পাইপসের বন্ধু, ভয়াবহ ইসলামবিরোধী, বিতর্কিত চরিত্র খালিদ দুরান ও টরোন্টো সিটির কুইন টেলিভিশনের উদ্যোক্তা ইরশাদ মানজি। আত্মস্বীকৃত নাস্তিক আযান হিরশি আলী। ইনি নিহত চলচ্চিত্র পরিচালক থিও ভ্যান গগ পরিচালিত মুসলমানের প্রতি আক্রমণাত্বক একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।
এই ব্যক্তিরা প্রকাশভঙ্গির স্বাধীনতা চর্চা করছেন এবং সমস্যার পরিধিতে অবস্থান করে প্রাতিষ্ঠানিক কাঠমোতে আঘাত করতে চাচ্ছেন। কিন্তু এই পদ্ধতি মুসলিম চরমপন্থাকে নরম করতে পারবে না। ইসলামকে তার প্রকৃত অবস্থায় অর্থাৎ নবী মোহাম্মদের অনুসৃত মধ্যপন্থী পথে ফিরিয়ে আনার মাধ্যমে অর্জিত হতে পারে সহনীয় ও ন্যায়ভিত্তিক আলাপ-আলোচনার পথ। সমাজচ্যুত ব্যক্তিদের সমর্থন নিয়ে বা তাদের একত্রিত করলে পুরো এমএম ফ্যাক্টরই গ্রহণযোগ্যতা হারাবে।
গ্রহণযোগ্যতা আর আন্তরিকতাই এই খেলার শর্ত। যিনি সহনীয় কণ্ঠস্বর অবলম্বন করছেন তাকে যুক্তরাষ্ট্র বা বাইরের বৃহত্তর মুসলমানের কাছে নিজের কথাকে গ্রহণযোগ্য করে তুলতে কয়েকটি বিষয় মনে রাখতে হবে :
১. তার সমাজসেবার অতীত উদাহরণ আছে কি না। তিনি একজন ধর্মপ্রাণ মুসলমান ও তার কোনো দূরবর্তী আকাক্সক্ষা নেই।
২. তিনি স্বাধীন মন সম্পন্ন একজন স্বাধীন মানুষ। ন্যায়বিচারের গতিপথের মতোই একজন ব্যক্তি বিভিন্ন বিষয়ে কখনোই একই পক্ষ অবলম্বন করতে পারেন না।
৩. তিনি সহমর্মী সেতুবন্ধ তৈরির মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ ও সহনশীল একটি সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে চান, যা আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। ইসলামের মৌল উৎস, যথা : কুরান ও সুন্নাহর দ্বারা তার মত সমর্থিত।
দুর্ভাগ্যজনকভাবে, ইসরাইল-প্যালেস্টাইন ইস্যুতেও নমনীয় মতগুলোর মধ্যে বৈপরিত্যময় অবস্থান লক্ষ্য করা যায়। ইসরাইলের টিকে থাকার অধিকার আছে কিনা এ অমীমাংসিত প্রশ্নে বিতর্ক হয় না, হয় প্যালেস্টাইনি জনগণের আত্মঅধিকার, বঞ্চনা ও দখলের বিরুদ্ধে লড়াই করার অধিকার আছে কি না সেটা নিয়ে। আমেরিকার অধিকাংশ অত্যুৎসাহী মুসলমান ক্রমশ এই ধরনের লিটমাস পরীক্ষার সামনে দাঁড়াচ্ছেন।
উদাসীন ও নিরুদ্বেগ মুসলিম চিন্তক ও কর্মীরা অথবা মডারেট পরিচয় বরণে প্রস্তুতরা তকমাটিকে মেনে নিয়েছেন। অন্যরা নিজেরা কতটা মডারেট বা লিবারেল তা বিবেচনা না করেই নিজেদের র‌্যাডিকাল বা সন্ত্রাসবাদীদের প্রতি সহানুভূতিশীল বলে ঘোষণা দিয়েছেন।
আরও একটি চিন্তার বিষয় হলো, ইউসুফ ইসলামের মতো গুরুপূর্ণ মুসলিম অ্যাকটিভিস্টের ধারাবাহিক হয়রানি। শান্তির পক্ষে সঙ্গীত চর্চা ও তৎপরতার জন্য বিখ্যাত এই শিল্পী পূর্বে ক্যাট স্টিভেনস নামে পরিচিত ছিলেন। হয়রানির শিকার হচ্ছেন, ব্যাপকভাবে সন্মানীত মডারেট মুসলিম পণ্ডিত ইউসুফ আল-কারাদওবি। তিনি চরমপন্থা ও র‌্যাডিক্যাল লিটারালিজমের বিরুদ্ধের প্রচারক বলে পরিচিত। হয়রানির শিকার হচ্ছেন, লিবারেল চিন্তাবিদ তারিক রমাদান। তিনি ইসলামিক মূল্যবোধ ও পশ্চিমা সংস্কৃতির মধ্যে সেতু তৈরির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালনের জন্য খ্যাত। এই তিনজনই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ক্ষেত্রে ‘জাতীয় নিরাপত্তার’ অজুহাতে বাধা পেয়েছেন।
সম্প্রতি কায়রোর যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস আল আজহার ফতোয়া কমিটির প্রধান আব্দুল হামিদ আল আতরাশকে এন্ট্রিভিসা দিতে অস্বীকার করেছে। কথা ছিল, রমজান উপলে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ইসলামিক সেন্টারে বক্তৃতা দেবেন। পরিহাস হলো : প্রাচীনতম ও সন্মানীয় আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বে সবচেয়ে মডারেট মুসলিম শিক্ষাকেন্দ্র হিসাবে পরিচিত।
বলার অপেক্ষা রাখে না, বিখ্যাত ও প্রকৃত মডারেট মুসলিমদের উপর এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা উল্লম্ফন, আমেরিকা-বিরোধিতা ও চরমপন্থাকেই বাড়িয়ে তুলবে। আইডিয়ার বাজারে চরমপন্থাকে পরাজিত করতে হলে মুসলমানদের (যাদের ধর্ম চরমপন্থীদের দ্বরা অধীকৃত হয়ে গেছে) ও আমেরিকা (যাদের নীতি কনজারভেটিভদের দ্বারা হাইজ্যাকড হয়েছে) উভয়কেই প্রকৃত মুসলমানদের সমর্থন দিতে হবে।
আর কারা মডারেট মুসলিম তার সংজ্ঞা নির্ধারিত না হওয়া পর্যন্ত খামখেয়ালি পররাষ্ট্রনীতির জটিলতাই তৈরি করবে।

২০০৫ সালের সেপ্টেম্বরে ইন্টারন্যাশনাল হেরাল্ড ট্রিবিউন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল।

অনুবাদ : মাহবুব মোর্শেদ

প্রকাশ করা হয়েছে: অনুবাদ বিভাগে ।

<!––>

  • ১৮ টি মন্তব্য
  • ২৮৯ বার পঠিত,
Send to your friend Print

রেটিং দিতে লগ ইন করুন

পোস্টটি ১২ জনের ভাল লেগেছে, ০ জনের ভাল লাগেনি

১. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৬:৩৬

comment by: সারওয়ারচৌধুরী বলেছেন: পোস্টের জন্য ৫

‘মডারেট মুসলিম’ একটা বিশেষ ধোঁয়া বিভ্রান্ত করার জন্য।

২. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৬:৩৮

comment by: বিথী বলেছেন: ৫ দিসি।
৩. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:১২

comment by: প্রশ্ন কত বলেছেন: মডারেট খ্রিষ্টান ,চরমপন্হী খ্রিষ্টান শব্দ কি ওরা ব্যবহার করে ? শুনেছেন কখনো । মডারেট মুসলিম,চরমপন্হী মুসলিম বলে মুসলমানদের বিভক্ত
করার প্রচেষ্টা ছাড়া কিছু না ।

অনুবাদ বলে ৩.৫

৪. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:৪১

comment by: মাহবুব সুমন বলেছেন: “দুর্ভাগ্যজনকভাবে, ইসরাইল-প্যালেস্টাইন ইস্যুতেও নমনীয় মতগুলোর মধ্যে বৈপরিত্যময় অবস্থান লক্ষ্য করা যায়। ইসরাইলের টিকে থাকার অধিকার আছে কিনা এ অমীমাংসিত প্রশ্নে বিতর্ক হয় না, হয় প্যালেস্টাইনি জনগণের আত্মঅধিকার, বঞ্চনা ও দখলের বিরুদ্ধে লড়াই করার অধিকার আছে কি না সেটা নিয়ে। ” একমত
ভালো লেগেছে।
তবে আমি অন্তত ঐ সব মডারেট মুজলিম না।
৫. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:৫১

comment by: ধ্রূপদী বলেছেন: চরমপন্থি (যেমন, জামাত) ও মডারেটেড মুসলিম (যারা ইসলামের কিছু মানে, কিছু ইচ্ছেমত রদবদল করে নেয়) দুটোই ইসলামকে বিকৃত করার দোষে দুষ্ট। প্রকৃত মুসলিম ধর্ম নিয়ে এত কচলাকচলি করে না, চুপচাপ এক আল্লাহর কথা মেনে চলে।
৬. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:৫৪

comment by: ‘ভিমরু’ বলেছেন: একমত @ প্রশ্ন কত

“মডারেট খ্রিষ্টান ,চরমপন্হী খ্রিষ্টান শব্দ কি ওরা ব্যবহার করে ? শুনেছেন কখনো । মডারেট মুসলিম,চরমপন্হী মুসলিম বলে মুসলমানদের বিভক্ত
করার প্রচেষ্টা ছাড়া কিছু না ।”

লেখার জন্য ৫। ধন্যবাদ মাহবুব মোরর্শেদ।

৭. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ রাত ৮:২৭

comment by: বিবেক সত্যি বলেছেন: ৫
৮. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ রাত ১০:২৩

comment by: আবূসামীহা বলেছেন: পশ্চিমাদের কাছে মডারেট মুসলিম হলো তারা যারা নিজেদের ধর্ম-কর্মের ধার ধারেনা, এবং তাদের দেশ ও সম্পদ পশ্চিমারা লুন্ঠন করলে বাধা দেয়না।
আপনার পোস্টের জন্য ৫।
৯. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ রাত ১০:২৮

comment by: ডক্টর১২৩ বলেছেন: আবু সামিহা জামাতে ইসলামী নামক নর্দমার কীট এবং একজন ধর্ম ব্যবসায়ী, ইসলাম নামক পবিত্র ধর্মকে আবুসামিহা নামক ধর্ম ব্যবসায়ির থেকে দুরে রাকুন
১০. ০২ রা অক্টোবর, ২০০৭ রাত ১০:৪৯

comment by: ইছামতীর পাড়ে বলেছেন: ডক্টর১২৩, ভালভাবে কথা বলা যায় না? একটু সুন্দর করে কথা বললে কি সমস্যা হ্য়?
এখানে জামাত আসল কোত্থেকে? ইসলামের আলোচনা করলেই গা জ্বালা করে?

যাহোক, ভাল পোষ্টের জন্য ৫ দাগানো হল।

১১. ০৩ রা অক্টোবর, ২০০৭ সকাল ৯:১৫

comment by: লালন ফকির বলেছেন: এক চাঁদে হয় জগৎ আলো
এক বীজে সব জন্ম হলো
লালন বলে মিছে কলহ
ভবে শুনতে হয়।
১২. ০৩ রা অক্টোবর, ২০০৭ সকাল ৯:৩৩

comment by: মাহমুদউল্লাহ বলেছেন: ৫ দিলাম। আমার এক বন্ধু ছিল মাহবুব মোরশেদ। আপনি কি ভাই শাহীনে পড়তেন?
১৩. ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০০৭ দুপুর ২:১০

comment by: মাহবুব মোর্শেদ বলেছেন: সবাইকে ধন্যবাদ মতামত শেয়ার করার জন্য।
মাহমুদউল্লাহ,
না আমি শাহীন কলেজে পড়ি নাই। তবে মাহবুব মোর্শেদ নামটা খুব কমন। অনেকের নামই মাহবুব মোর্শেদ।
১৪. ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০০৭ দুপুর ২:৩৯

comment by: জুবেরী বলেছেন: নিওকনজারভেটিভ মার্কিন প্রশাসন এখন জামাতকে মডারেট মুসলিম দল হিসাবে ঘোষনা দিয়েছে আর প্রথম আলো তো বাংলাদেশকে মডারেট মুসলিমদেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে বিশেষ প্রচারণাকে পলিসি হিসাবে গ্রহন করেছে ।

সংকেত কিসের ???????

বি:দ্র: মডারেট মুসলিম ধারণার প্রধান প্রচারকের (প্রথম আলো)সাথে র‌্যাডিক্যাল মুসলিম গোষ্ঠির
র্কাটুন বিরোধ তাই স্বাভাবিক ।
প্রথম আলোর প্রতি জামাতের আক্রশ তাই বোধ হয় কিছুটা নমনীয় ।

১৫. ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:১৩

comment by: মাহবুব মোর্শেদ বলেছেন: জুবেরী,
আপনার বিশ্লেষণটা চমকপ্রদ। এভাবেও ভাবা যায়।
১৬. ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০০৭ সন্ধ্যা ৭:১৬

comment by: একরামুল হক শামীম বলেছেন: মাহবুব ভাই কেমন আছেন?
সচলায়তনের অ্যাড্রেসটা দেন প্লিজজজ…
১৭. ২০ শে অক্টোবর, ২০০৮ বিকাল ৩:৩৬

comment by: নিরক্ষর বলেছেন: সুন্দর পোস্ট। প্লাসাইলাম।
২০ শে অক্টোবর, ২০০৮ বিকাল ৩:৪৭

লেখক বলেছেন: হ।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s